Krishak Bandhu Payment Date: কৃষক বন্ধু টাকা কবে দেওয়া হবে 2024?

Krishak Bandhu Payment Date

Krishak Bandhu Payment Date – Krishak Bandhu Status check online Aadhar Card – Krishak Bandhu Status check Voter ID: অপেক্ষার দিন শেষ এবার রাজ্য সরকার এর তরফ থেকে জানানো হলো কবে দেওয়া হবে এই কৃষক বন্ধু প্রকল্পের টাকা । তাহলে চলুন ফালতু না বকে জেনে নেওয়া যাক । যে কবে এই কৃষক বন্ধু প্রকল্পের টাকা রাজ্য সরকার এর তরফ থেকে কৃষকদের ব্যাঙ্ক অ্যাকাউন্ট পাঠানো হবে ॥

রাজ্যের কৃষকদের আর্থিক ভাবে সাহায্য করার জন্য রাজ্য সরকার এর তরফ থেকে চালু করা হয়েছে এই কৃষক বন্ধু প্রকল্প । এই প্রকল্পের মাধ্যমে সরকার রাজ্যের কৃষকদের ১০,০০০ এবং ৪,০০০ টাকা করে দিয়ে থাকেন । তবে এই টাকা সরকার বছরে ২টি কিস্তির মাধ্যমে দিয়ে থাকেন । একটি কিস্তি রবি সিজিনে আর একটি কিস্তি খরিফ সিজিনে ॥

WhatsApp Channel Join Now
Telegram Channel Join Now

Krishak Bandhu Payment Date ?

এবার কৃষক বন্ধু প্রকল্পের টাকা দেবার কাজ শুরু করলেন রাজ্য সরকার । যদি আপনি একটু কষ্ট করে দেখেন । তাহলে আপনি দেখতে পাবেন যে আপনারও স্টাটাসের পরিবর্তন এসেছে । আর এই স্টাটাসে অনেকের অনেক রকম পরিবর্তন দেখা গিয়েছে । কারোর স্টাটাস এর ঘর ফাকা দেখাচ্ছর আবার কারোর স্টাটাস আপডেট হয়ে গিয়েছে ॥

কৃষক বন্ধু টাকা কবে দেওয়া হবে 2024?

কৃষক বন্ধু প্রকল্পের স্টাটাসের পরিবর্তন তো আসতে লেগেছে । আর কৃষক বন্ধু প্রকল্পের টাকা দেওয়ার সময় হয়ে গিয়েছে । পশ্চিমবঙ্গের রাজ্য সরকার আজ থেকে মানে ১২ই জুন ২০২৪ তারিখের বিকেল ৪টের সময় কৃষক বন্ধু সহ বাংলা শস্য বীমা প্রকল্পেরও টাকা ছেড়ে দিলেন রাজ্যের কৃষকদের অ্যাকাউন্ট । এছাড়াও এই লোকসভা ভোটের পরে প্রধানমন্ত্রী কিষাণ সম্মান নিধি প্রকল্পের টাকা দেবার অনুমান করা হয়েছিলো ॥

কিন্তু এবার সেই অনুমান গুলো সত্য হতে চলেছে । লোকসভা ভোটের রেজাল্ট ঘোষণা হয়েছে গত ৪ই জুন ২০২৪ তারিখে । আর এই রেজাল্ট ঘোষণা হবার পর থেকে একের পর এক আপডেট চলে আসছে । এবার এই জুন মাসের ১২ তারিখে বিকেল ৪টের সময় পশ্চিমবঙ্গ সরকার রাজ্যের কৃষকদের কৃষক বন্ধু প্রকল্পের টাকা দেওয়া শুরু করে দিয়েছেন । এছাড়াও দেশের কৃষকদের কেন্দ্রীয় সরকার প্রধানমন্ত্রী কিষাণ সম্মান নিধি প্রকল্পের টাকা দিতে চলে ১৮ই জুন । কিন্তু কৃষক বন্ধ টাকা দেবার কোনো তারিখ জানা জাইনি ॥

কৃষক বন্ধু স্টাটাস দেখার পদ্ধতি ?

১) প্রথমে প্রকল্পের অফিসিয়াল ওয়েব সাইটে চলে আসবেন । লিংক আপনারা নিজে পেয়ে যাবেন ॥

২) এবার এই ওয়েব সাইটের হোম পেজে দেখবেন নথিভুক্ত কৃষকের তথ্য অপশেনে রয়েছে সেখানে ক্লিক করবেন ॥

৩) এবার যে নম্বর দিয়ে স্টাটাস দেখতে চান । সেই নম্বর বসিয়ে দিবেন এবং সিলেট করে নিবেন ॥

৪) এবার আপনি সার্চ অপশেনে ক্লিক করবেন । তাহলে এখানে আপনি সমস্ত তথ্য গুলো দেখতে পেয়ে যাবেন ॥

রাজ্য সরকার প্রথম টুইট করেছেন ?

এটা অত্যন্ত আনন্দের যে আজকে কৃষকবন্ধু (নতুন) প্রকল্পে রাজ্যজুড়ে ১ কোটি ৫ লক্ষ কৃষক ও বর্গাদারকে ২ হাজার ৯০০ কোটি টাকা সহায়তা প্রদানের পাশাপাশি আমরা ‘বাংলা শস্য বীমা’র আওতায় সারা রাজ্যের ২ লক্ষ ১০ হাজার কৃষককে সরাসরি তাঁদের ব্যাঙ্ক অ্যাকাউন্টে ২৯৩ কোটি টাকা আর্থিক সহায়তাও প্রদান শুরু করলাম। 

চলতি রবি মরসুমে প্রতিকূল আবহাওয়ার কারণে যে সকল কৃষকের চাষের ক্ষতি হয়েছিল তাঁদের এই সহায়তা করা হচ্ছে। আমাদের সরকার ‘বাংলা শস্য বিমা’ চালু করার ফলে ফসল নষ্ট হয়ে গেলেও আমাদের কৃষকরা এভাবেই আর্থিক ক্ষতির থেকে রক্ষা পাচ্ছেন। এজন্য তাদের কোনো টাকাও দিতে হচ্ছে না। শস্যবীমার প্রিমিয়ামের পুরো টাকাও রাজ্য সরকারই দিচ্ছে। 

২০১৯ সালে চালু হবার পর থেকে ‘বাংলা শস্য বিমা’ প্রকল্পে ১ কোটি ক্ষতিগ্রস্ত কৃষককে মোট ৩ হাজার ১৩৩ কোটি টাকা সহায়তা প্রদান করা হয়েছে। কৃষকদের বিপদে কৃষকদের পাশে থাকতে পেরে আমি গর্বিত।

Krishak Bandhu Payment Date

রাজ্য সরকার দ্বিতীয় টুইট করেছেন ?

আমি অত্যন্ত আনন্দের সঙ্গে ঘোষণা করছি যে, আমাদের কৃষকবন্ধু (নতুন) প্রকল্পে আমরা রাজ্যজুড়ে কৃষক ও বর্গাদারদের প্রতিবছর খরিফ ও রবি মরসুমে চাষের সুবিধার জন্য যে সহায়তা প্রদান করি তারই অঙ্গ হিসেবে এবারের আসন্ন খরিফ মরসুমের জন্য রাজ্যের ১ কোটি ৫ লক্ষ কৃষক ও বর্গাদারকে সহায়তা প্রদান আজ থেকে শুরু করা হল। তাঁদের ব্যাঙ্ক অ্যাকাউন্টে সরাসরি মোট ২ হাজার ৯০০ কোটি টাকা এই পর্যায়ে দেওয়া হচ্ছে। এই বছরের শেষের দিকে রবি মরসুমের জন্যও একই পরিমাণ টাকা দেওয়া হবে। 

কৃষকবন্ধু (নতুন) প্রকল্পে রাজ্যের কৃষকদের ও বর্গাদারদের বছরে দুই কিস্তিতে একর প্রতি ১০ হাজার টাকা সহায়তা দেওয়া হচ্ছে। যাঁদের কম জমি আছে, তাঁরাও আনুপাতিক হারে (ন্যূনতম ৪ হাজার টাকা) সহায়তা পান। ২০১৯ সালে চালু হবার পর থেকে এই প্রকল্পে মোট ১৮ হাজার ২৩৪ কোটি টাকা আমরা আমাদের কৃষকদের কাছে পৌঁছে দিয়েছি। এজন্য আমি গর্বিত! 

শুধু তাই নয়, ১৮ বছর থেকে ৬০ বছর বয়স পর্যন্ত কোনো কৃষক মারা গেলে তাঁর পরিবারকে সামাজিক সুরক্ষা দেবার উদ্দেশ্যে ২ লক্ষ টাকা সহায়তাও দেওয়া হয়। এই খাতেও বাংলার প্রায় ১ লক্ষ ১২ হাজার কৃষক পরিবার মোট ২ হাজার ২৪০ কোটি টাকা সহায়তা পেয়েছেন। 

আমি সবসময় মনে করি, আমাদের কৃষকরা আমাদের সম্পদ, আমাদের গর্ব। আমাদের সরকার আগামীদিনেও এভাবেই তাঁদের সার্বিক কল্যাণের উদ্দেশ্যে কাজ করে যাবে। 

Krishak Bandhu Payment Date

Krishak Bandhu Payment Date ?

এবার কৃষক বন্ধু প্রকল্পের টাকা দেবার কাজ শুরু করলেন রাজ্য সরকার । যদি আপনি একটু কষ্ট করে দেখেন । তাহলে আপনি দেখতে পাবেন যে আপনারও স্টাটাসের পরিবর্তন এসেছে । আর এই স্টাটাসে অনেকের অনেক রকম পরিবর্তন দেখা গিয়েছে । কারোর স্টাটাস এর ঘর ফাকা দেখাচ্ছর আবার কারোর স্টাটাস আপডেট হয়ে গিয়েছে ॥

অফিসিয়াল ওয়েব সাইট লিংক – Click Now

Leave a Comment

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Scroll to Top